রোমান হরফের বিরল অক্ষর

বাংলা কথাকে ইংরেজী হরফে লেখতে আমরা অনেকে এতটাই অভস্ত যে এছাড়া আর কোন বর্ণমালায় টাইপ করতে পর্যন্ত ইচ্ছে করে না! কিন্তু ইংরেজী বর্ণমালার ২৬টা অক্ষর দিয়ে বাংলা ভাষার উচ্চারণ ঠিক মত প্রকাশ করা যায় না। শুধু বাংলাই না, ইংরেজী ভাষার উতপত্তি যে খানে, খোদ সে ইউরোপের অন্যান্য অনেক ভাষার উচ্চারণই লেখা যায় না ইংরেজী বর্ণমালায়। ধ্বনিভিত্তিক ভাষাগুলোর অবস্থা ইউরেপীয় ভাষাগুলো থেকে আরো করুণ, উদাহরণ তো বাংলা ভাষাই। জাপানীভাষীরা এ সমস্যা দুর করতে রোমাজী নামে ইংরেজী বর্ণমালার একটা বর্ধিত রুপ ব্যবহার করে। রোমাজী আসলে ইংরেজী বর্ণমালার থেকে নেয়া না, বরং রোমান হরফমালা থেকে নেয়া। রোমান বা ল্যাটিন হরফমালা থেকেই মূলত ইংরেজীসহ ইউরোপীয় অন্যান্য ভাষাগুলোর বর্ণমালার উতপত্তি। রোমান হরফে অনায়াসেই বিহ্বলতা ছাড়া বাংলা “আমার” কে লেখা যায় “āmar”, যেখানে প্রচলিত বাংলিশ “amar” এর উচ্চারণ দাঁড়ায় “অ্যাম্যাড়”।

ইংরেজীবাদে ইউরোপীয় কোন ভাষা শিখতে গেলেই “ā” এর মত বিশেষ ধরণের কিছু অক্ষর, বা অ্যাকসেন্ট লেখা শিখতে হয় ভাষাটাকে ঠিকমত লেখতে। মোটামুটি তেরোটার মত বিশেষ চিহ্ন আছে যেগুলো ব্যবহার করে স্বরবর্ণ এবং অনেক ক্ষেত্রে ব্যঞ্জনবর্নগুলোকে উচ্চারণ দেয়া হয়। হাতে কোনরকমে লেখে পার পাওয়া যায়, কিন্তু সমস্যা বাঁধে কম্পিউটারে টাইপ করার সময়। কি-বোর্ডের ১০১টা কি বা চাবি দিয়ে এই এত প্রকারের অক্ষর লেখা যায় না। অন্যদিকে, এই ধ্বনিগুলো কিছু প্যাট্যার্ন অনুসরণ করে, যেমন আ হল a এর ওপর ¯ বা ম্যাক্রন(macron), ā; ঈ এর জন্য ī এবং ঊ এর জন্য ū. বিশেষ কিছু কি-কম্বিনেশনের মাধ্যমেই এই অক্ষরগুলো লেখা যায় কি-বোর্ডে, কিন্তু শুধু বিশেষ কিছু লেআউটে। এ কাজ করা যায় ইংরেজী, ফরাসি, জার্মান ইত্যাদি ভাষার কি-বোর্ডের সাধারণ লেআউটের ওপর ভিত্তি করে তৈরী করা এক্সটেন্ডেড কিছু লেআউট ব্যবহার করে। বাংলাদেশ সহ সারা বিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় কি-বোর্ড লেআউট হল English US, সেটা থেকে তৈরী করা হয়েছে English US alternative international এবং English US international with dead keys.

ফরাসি শিখতে গিয়ে à, é ইত্যাদি অ্যাকসেন্ট লেখা শিখেছি সহজে, কিন্তু ঝামেলায় পড়েছিলাম c cedilla মানে ç লেখতে গিয়ে। প্রথমে তো কোন কিবোর্ডেই খুঁজে পাই না এসব চিহ্ন লেখতে! শেষে বাধ্য হয়ে ফরাসি কিবোর্ডের কথা ভাবতে হল। ফরাসি কিবোর্ড প্র্যাক্টিস করার সাইট খুঁজতে গিয়ে জানতে পারলাম English US alternative international কিবোর্ডের কথা, আর চট করেই ধরে ফেললাম কি করে অ্যাকসেন্টগুলো লেখতে হয়। কিন্তু ç এর জন্য কোন কি-কম্বিনেশনই পাই না! তারপর English US international with dead keys ব্যবহার করতে গিয়ে আবিষ্কার করলাম ডান alt কি দিয়ে আরেক দফা মডিফাই করা যায় কিবোর্ড। আমার কোন ধারণাই ছিল না যে কিবোর্ডের তৃতীয়, চতুর্থ ইত্যাদি লেভেল থাকে!

যাই হোক, আমি দুনিয়ার সবচেয়ে বড় গাধা কি না জানি না, তবে এটা বিশ্বাস করি যে আরো অনেকেই হয়ত নিজে নিজে ভাষা শিখতে গিয়ে এরকম টাইপ জনিত সমস্যায় পড়েছেন। তারা যাতে সহজে অ্যাকসেন্টগুলো টাইপ করা ধরতে পারেন সেজন্য আমার প্রিয় English US alternative international কিবোর্ডের কি-কম্বিনেশনগুলো-সমেত ব্লগে পোস্ট করে রাখলাম।

US Alternative International keyboard
US Alternative International keyboard
Advertisements

2 thoughts on “রোমান হরফের বিরল অক্ষর

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s